W3vina.COM Free Wordpress Themes Joomla Templates Best Wordpress Themes Premium Wordpress Themes Top Best Wordpress Themes 2012

কুমিল্লায় সিটি কাউন্সিলর ও বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য কর্তৃক শিক্ষিকা লাঞ্চিত।। শিক্ষার্থীদের ক্লাশ বর্জন ও বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার।।কুমিল্লায় শিক্ষিকা লাঞ্ছিতের ঘটনায় ক্লাস বর্জন করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ কুমিল্লা মহানগরীর সংরাইশ সালেহা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষিকা নাদিয়া বেগমকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও অসুভন আচরণ করে বলে অভিযোগ উঠে, কুমিল্লার সিটি কপোর্রেশনের ১৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন খোকনের বিরুদ্ধে। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানান লাঞ্ছিত ওই শিক্ষিকা। এর প্রতিবাদে স্কুলের শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত ক্লাশ বর্জন করে বিক্ষোভ করে। জানা যায়, কয়েক দিন পূর্বে সহকারী প্রধান শিক্ষক ও লাইব্রেরিয়ান নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি হয়। এ নিয়ে স্থানীয় ১৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও বিদ্যালয়ের মেনেজিং কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন খোকন গত ১৬ নভেম্বর দুপুরে বিদ্যালয়ে আসেন। এবং শিক্ষিকা নাদিয়া বেগমকে ডেকে নিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও অশোভনীয় আচরণ করে। পরে সহকর্মী শিক্ষিকা মাহাবুবা বেগম প্রতিবাদ করলে তিনি তার সাথেও এমন আচরণ করেন। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অন্যান্য শিক্ষকগন। বিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষক সুমন চন্দ্র সরকার বলেন, তিনি কোন কারণ ছাড়াই খারাপ আচরন করে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই। বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী শ্রাবণী ও তানিয়া আক্তার সহ কয়েক জন শিক্ষার্থী দাবি জানিয়ে বলেন, নাদিয়া ম্যাম অনেক ভাল। তিনি আমাদের অনেক আদর করেন। শিক্ষককে নিয়ে এমন ঘটনা আমরা মানতে পারছি না। এ ঘটনার বিচার না হলে আমরা ক্লাসে যাব না। আমরা আন্দোলনে চালিয়ে যাব। বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত কাউন্সিলর আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন খোকন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তারা আমার বিষয়ে আপনাদের কাছে যা বলেছে, আসলে এমন কিছুই হয়নি। তবে সামান্য উচ্চবাচ্য হয়েছে। এছাড়া তেমন কিছুই ঘটেনি। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মতিন মোল্লা বলেন, আমি বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কে ঘটনাটি জানিয়েছি। তিনি বলেছেন ব্যবস্থা নিবেন। তিনি শিক্ষকের সাথে এমন অশোভনীয় আচরণের প্রতিবাদ জানাই। এ ঘটনায় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ফায়সাল হোসেন জানান, আমি এ বিষয়ে তেমন কিছু জানিনা। এখন আপনাদের মাধ্যমে জানলাম। বিষয়টি খতিয়ে দেখব। এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুল মজিদ বলেন, মৌখিক ভাবে বিষয়টি জেনেছি। বিদ্যালয় থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নিবেন।

15151037_1460258300668576_1540016374_n

You must be logged in to post a comment Login