W3vina.COM Free Wordpress Themes Joomla Templates Best Wordpress Themes Premium Wordpress Themes Top Best Wordpress Themes 2012

আমাদের দুর্বলতায় কাঙ্ক্ষিত রায় পেতে দেরি : তুরিন আফরোজ

Filed under: জাতীয় |

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেছেন, ‘আমাদের হয়তো দুর্বলতা ছিল, সে কারণে সুষ্ঠু বিচার পেতে এতো কালক্ষেপণ হলো। তবে শেষ অবধি রিভিউ রায় বহাল থাকায় আমরা সন্তুষ্ট।’ মঙ্গলবার সকালে মীর কাসেম আলীর রিভিউ রায়ের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।
2
সকালে শতাধিক আইনজীবী, মুক্তিযোদ্ধা, দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তি, দেশি-বিদেশি সংবাদকর্মীর উপস্থিতিতে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বাধানী পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চে রিভিউ আবেদন খারিজের এই আদেশ দেন। এই আদেশের পর বিচারিক আর কোনো বাধা থাকলো না।

তুরিন আফরোজ বলেন, অসাধারণ ভালো লাগছে। মামলার ধরন আলাদা ছিল। আন্তর্জাতিকভাবে বিচার প্রক্রিয়ায় তদন্ত ও আইনি লড়াইয়ের চ্যালেঞ্জ ছিল। সব কিছু মোকাবেলা করে আজ কাঙ্ক্ষিত রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করছি।

ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেন, মীর কাসেম আলী জামায়াতে ইসলামির প্রধান অর্থলগ্নীকারী ব্যক্তি। তিনি দেশি-বিদেশি লবিস্ট নিয়োগ করেছিলেন। রায় ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চ্যালেঞ্জ সব সময়ই ছিল। সে কারণে আমরা রায় নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলাম।

তিনি বলেন, আমাদের হয়তো দুর্বলতা ছিল। সে কারণেই হয়তো এতো দেরি হয়েছে। অনেক চাপ ও অপকৌশল মোকাবেলা করেই জাতিকে এমন একটি রায় আমরা উপহার দিতে পেরেছি। সেদিক থেকে আমাদের চূড়ান্ত বিজয় হয়েছে।

আমাদের এখন অপেক্ষার পালা। এই রায়ের পর বিচারিক আর কোনো বাধা থাকলো না। এখন পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পালা। এরপর মীর কাসেম যদি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণ ভিক্ষা চান এবং রাষ্ট্রপতি যদি ক্ষমা করেন তবে তিনি বেঁচে যাবেন। ক্ষমা না করলে ফাঁসি কার্যকরের ক্ষেত্রে আর কোনো বাধা থাকবে না।

You must be logged in to post a comment Login